বাঁচতে দিন, বাঁচতে দিন, আমাদের বাঁচতে দিন

সম্প্রতি রমজান মাস ও ঈদ উপলক্ষে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম লাগামহীন। খেটে খাওয়া মানুষের দুঃখ ও দুর্দশার অন্ত নেই।

হু হু করে বাড়ছে চাল, ডাল, সবজি,তেল, মাছ সহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম। এবার ঈদে গরুর মাংসের দাম আকাশচুম্বী হওয়ায় আশঙ্কা করা হচ্ছে বয়লার মুরগীর দামও আরেক দফা বেড়ে যাবে।

এমন অবস্থায় নিম্নআয়ের মানুষেরা মারাত্মক হুমকির মুখে। দুবেলা দুমোঠো ভাত খাওয়ার জন্য যাদের সংগ্রাম তারা কোণঠাসা হয়ে পড়ছে। সরকারের উচিত অতিদ্রুত নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম কমিয়ে বিলাসবহুল দ্রব্যের দাম বাড়িয়ে দেয়া।

চাল, ডাল, তেল, মাংসের দাম স্বাভাবিক অবস্থায় রেখে পারফিউম, বিদেশি কসমেটিকস, সুগন্ধি তেল সহ বিলাসবহুল দ্রব্যের দাম কয়েকদফা বাড়িয়ে অর্থনীতিকে সচল রাখা এখন সময়ের দাবি।

যদি এমন লাগামহীন ভাবে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম বাড়তে থাকে তাহলে অচিরেই নিঃস্ব হয়ে যাবে দেশের নিম্ন আয়ের মানুষেরা এবং সেই সাথে শুরু হবে বিশৃঙ্খলা, সৃষ্টি হবে দুর্বিক্ষ। তাই যথাযথ কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি নিম্ন আয়ের মানুষের অসহায়ত্বের কথা বিবেচনাপূর্বক আশু সমাধানের জন্য।

লেখক: রকি মেরাজ

শিক্ষার্থী,নৃবিজ্ঞান বিভাগ 

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে [sharethis-inline-buttons]
error: Content is protected !!