তৃতীয় ধাপে ৩০ হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করলো নসরুল হামিদ ও শাহীন আহমেদ

প্রাণঘাতী মহামারী করোনাভাইরাসে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে অসহায় দিনমজুর খেটে খাওয়া গরীব মানুষ গুলো। সব কিছু বন্ধ থাকায় তারা কাজের জন্য ঘড়ের বাহিরে যেতে পারছে না। সব মিলিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন তারা। কেরানীগঞ্জের অসহায় পরিবারগুলোর যেন না খেয়ে থাকতে না হয় তার জন্য সরকারের পাশাপাশি এগিয়ে এসেছেন কেরানীগঞ্জের সাংসদ বিদ্যুৎ,জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু ও কেরানীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীন আহমেদে।

প্রথম ধাপে ৫০ হাজর ও দ্বিতীয় ধাপে ২৬ হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরনের পরে তৃতীয়  ধাপে আবার ৩০ হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করা হচ্ছে।

 

বিষয়টি নিশ্চিত করে উপজেলা চেয়ারম্যানের ব্যাক্তিগত সহকারী হারুন আর রশিদ পিন্টু জানান,  ইতিমধ্যে  কেরানীগঞ্জের ১২টি ইউনিয়নে ৭৬ হাজার পরিবারকে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী, বিতরণ করা হয়েছে। এবার তৃতীয় ধাপে ১২ টি ইউনিয়নের ৩০ হাজার পরিবারের মাঝে বিতরন করা হচ্ছে। খাদ্য সামগ্রীর মাঝে থাকছে, চাল, ডাল, পেয়াজ, আলু, লবন, ও তেল।

 

কেরানীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীন আহমেদ এ বিষয়ে বলেন, ইন সা আল্লাহ কেরানীগঞ্জে একটি লোক ও না খেয়ে থাকবে না । উপজেলা প্রশাসন ও কেরানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করছে যেন প্রতিটি অসহায় মানুষের ঘরে ঘরে ত্রাণ পৌছায়। ইতিমধ্যে আমরা নসরুল হামিদ বিপু ভাইয়ের নির্দেশনা মতো ৭৬ হাজার পরিবারকে সহায়তা করেছি।  এবার দ্বিতীয় ধাপে ২৬ হাজার পরিবারকে সহায়তার উদ্দ্যোগ নেয়া হয়েছে। আমাদের এই সহায়তা কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। প্রিয় কেরানীগঞ্জ বাসী আপনারা দয়া করে ঘরে থাকুন নিরাপদে থাকুন। প্রশাসনের নির্দেশ মেনে চলুন।

 

 

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে [sharethis-inline-buttons]

Check Also

কেরানীগঞ্জ উপজেলায় বাস্তবায়ন হচ্ছে বিষমূক্ত সব্জি উৎপাদনের ব্যাপক কার্যক্রম

নিরাপদ ও বিষমূক্ত সব্জি উৎপাদনের লক্ষ্যে ঢাকার কেরানীগঞ্জ উপজেলার হযরতপুর ইউনিয়নকে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে সমনি¦ত …

error: Content is protected !!