কেরানীগঞ্জে সকল বেসরকারি হাসপাতালে বিএমডিসি রেজিষ্ট্রেশনসহ বিলবোর্ড স্থাপন বাধ্যতামূলক করেছে উপজেলা প্রশাসন

মুজিববর্ষ উপলক্ষে কেরানীগঞ্জ উপজেলায় সকল বেসরকারি হাসপাতালে ডাক্তারদের নামের নিচে বিএমডিসি রেজিষ্ট্রেশন নম্বর উল্লেখ করে বিলবোর্ড স্থাপন বাধ্যতামূলক করেছে কেরানীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন। যে সকল হাসপাতাল/ ক্লিনিক ডাক্তারদের নামের নিচে রেজিষ্ট্রেশন নাম্বার উল্লেখ করবে না , তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানিয়েছে উপজেলা প্রশাসন।

ফলে এখন থেকে ভূয়া ডাক্তার শনাক্ত করা  সহজ হবে এবং সাধারন মানুষও বুঝতে পারবে। বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো কেরানীগঞ্জ উপজেলায় এই উদ্দ্যোগ গ্রহন করা হয়েছে বলে জানা যায়।

এ বিষয়ে কেরানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার অমিত দেবনাথ বলেন, সমগ্র বাংলাদেশে অনেক বেসরকারি হাসপাতাল রয়েছে। এদের মধ্যে অনেকেই ভূয়া ডাক্তার। কিন্তু বাহির থেকে দেখলে বোঝা যায় তিনি ভূয়া কি না।  যারা ডাক্তারী প্র্যকটিস করে তাদের বিএমডিসি একটা রেজিষ্ট্রেশন নাম্বার রয়েছে। বিএমডিসি ওয়েবসাইটে গিয়ে ঐ নাম্বারটি দিয়ে সার্চ করলেই তার ছবিসহ ডাটা চলে আসবে। ফলে যে কেউ চাইলেই শনাক্ত করতে পারবে ।

তাই আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি কেরানীগঞ্জে যত প্রাইভেট হসপিটালে ডাক্তাররা আছে তাদের ছবি এবং বিএমডিসি  রেজিষ্ট্রেশন নাম্বারসহ হসপিটালের প্রবেশ মুখে বিলবোর্ড স্থাপন করতে হবে। তা হলে ভূয়া ডাক্তাররা রেজিষ্টেশন নাম্বার দিতে পারবে না। কেউ প্রতারনার আশ্রয় নিলে ঐ নাম্বারটি লিখে সার্চ করলেই তার প্রতারনা বেড়িয়ে আসবে। আশা করি কেরানীগঞ্জের মানুষ এতে উপকৃত হবে এবং ভূয়া ডাক্তার সহজেই শনাক্ত হবে।

 

 

 

এদিকে মুজিব বর্ষকে সামনে রেখে কেরানীগঞ্জের উপজেলা প্রশাসনের গৃহীত এ পদক্ষেপকে সাধুবাদ জানিয়েছে  এলাকার সাধারন জনগন। বাংলাদেশের স্বাস্থ্য সেবা খাতে এ প্রক্রিয়াটি অভূতপূর্ব একটি সাড়া ফেলবে বলে অনেকে অভিমত দিয়েছেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে [sharethis-inline-buttons]

Check Also

কেরানীগঞ্জ উপজেলায় বাস্তবায়ন হচ্ছে বিষমূক্ত সব্জি উৎপাদনের ব্যাপক কার্যক্রম

নিরাপদ ও বিষমূক্ত সব্জি উৎপাদনের লক্ষ্যে ঢাকার কেরানীগঞ্জ উপজেলার হযরতপুর ইউনিয়নকে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে সমনি¦ত …

error: Content is protected !!