কেরানীগঞ্জে বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ; মোট আক্রান্ত ১৩৬ জন

কেরানীগঞ্জে বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। প্রতিদিন ই পাওয়া যাচ্ছে করোনা রোগী। বুধবারও কেরানীগঞ্জের  ৭টি ইউনিয়নে ৩৩ জন নতুন করে করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে উপজেলায় মোট করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে ১৩৬ জন। বিষয়টি জানিয়েছেন কেরানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মীর মোবারক হোসেন দিগন্ত।

মীর মোবারক হোসেন দিগন্ত বলেন, বুধবার    ৩৩ জনের করোনা ভাইরাস টেস্ট রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে। এ নিয়ে কেরানীগঞ্জে মোট করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হলো ১৩৬  জন। এদের মধ্যে জিনজিরা ইউনিয়নে ৮ জন, আগানগর ইউনিয়নে ২ জন, শাক্তা ইউনিয়নে ২ জন কালিন্দী ইউনিয়নে ২ জন কেরানীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একজন ডাক্তার, কোন্ডায় ৩ জন শুভাঢ্যা ৩ জন তেঘরিয়া ইউনিয়নে ১ জন, ঠিকানাবিহীন জুনায়েদ হোসেন নামে ৪ বছর বয়সী এক শিশু, কেরানীগঞ্জ মডেল থানার ৫ পুলিশ সদস্য, ও র‍্যাব ১০ এর ৫ জন সদস্য রয়েছে।

স্বাস্থ্য এ কর্মকর্তা আরো জানান, করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে গিয়ে আমাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ৭ জন স্বাস্থ্য কর্মকর্তা আক্রান্ত হয়েছেন । তারপরেও আমরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে লক ডাউন না করে সাধারন জনগনকে সেবা দিয়ে যাচ্ছি। আমাদের উপজেলার  পুলিশ সদস্যও আক্রান্ত হয়েছেন। আমরা আমাদের সর্বোচ্চ দিয়ে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করে যাচ্ছি। সাধারন জনগনকে শুধু অনুরোধ করবো, আপনারা শুধু বাসায় থাকুন। দয়া করে বাসায় থাকুন। আপনারাও করোনা থেকে দূরে থাকুন। অন্যদেরকেও ভালো রাখুন।

উল্লেখ্য করোনাভাইরাসে কেরানীগঞ্জে এ পর্যন্ত ৬ জন মারা গেছেন। এবং ৪ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। করোনা আক্রান্ত দুইজন রোগী পলাতক ছিলেন। এর মধ্যে খোকন দাস কে দোহার থানা থেকে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ। অজুফা আক্তার (৪০) নামে এক নারী এখোনো পলাতক রয়েছে।#

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে [sharethis-inline-buttons]

Check Also

কেরানীগঞ্জে সুজন বাহিনীর ভয়ে চার বছর এলাকা ছেড়ে থাকছেন বলে অভিযোগ বীর মুক্তিযোদ্ধার

কেরানীগঞ্জের কোন্ডা ইউনিয়নে কান্দাপাড়া গ্রামে সুজন বাহিনীর ভয়ে প্রায় চার বছর নিজের বাপ দাদার বসতবাড়ি …

error: Content is protected !!