কেরানীগঞ্জে জমি সংক্রান্ত বিরোধে একজন খুন

ঢাকার কেরানীগঞ্জে জমি সংক্রান্ত বিরোধে মো: মোকলেস মিয়া (৩৮) নামে এক ব্যাক্তি খুন হয়েছে। এ ঘটনায় খুনের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে রায়হান (২০),হিমেল (২০) ও জিহান (১৯) নামে তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে কেরানীগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ। রবিবার ৪ সেপ্টেম্বর বিকালে কেরানীগঞ্জ মডেল থানাধীন তারানগর ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের সিরাজনগর গ্রামে এ খুনের ঘটনা ঘটে।

নিহত মো: মোকলেস মিয়ার পিতা মো: মোসলেম জানান, তাদের সাথে তাদের পাশের বাড়ির জাহাক্সগীর মিয়ার একটি জমি নিয়ে বিরোধ কয়েক বছর ধরেই। দুই বছর আগে স্থানীয় পঞ্চায়েতে বিচারের মাধ্যমে মোকলোসের সাথে জাহাক্সগীরে মিলমিশ করিয়ে দেয়া হয়। কিন্ত জাহাঙ্গীরের পরিবার উক্ত বিচারে অসুন্তষ্ট ছিলো। আজকে বিকালে যখন তার ছেলে মোকলেস জমিতে কৃষি কাজ করছিলো, তখন জমিতে কাজ করার কারনে জাহাঙ্গীরের তিন ছেলে রায়হান,হিমেল,জিহান সহ আরো কয়কজন এসে মোকলেস কে দা সেনি দিয়ে কোপায়। মোকলেসের ডাক চিৎকারে সবাই ঘটনাস্থলে আসলে ওরা পালিয়ে যায়।

আমরা রক্তাক্ত অবস্থায় প্রথমে মোকলেসকে কলাতিয়া হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখান থেকে ঢাকা মেডিক্যেলে নিয়ে যেতে বলা হলে,পথিমধ্যেই মোকলেস মারা যায়। আমরা ৭ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করছি। আমি আমার ছেলে হত্যার সুষ্ঠ বিচার চাই।
সিরাজনগর পঞ্চায়েত কমিটির সদস্য মো: সামসুদ্দিন জানান, জাহাঙ্গীর আর মোকলেস পারিবারিক ভাবে আত্মীয়। জমি নিয়ে ওদের বিরোধ দীর্ঘ দিনের। আমি দুই বছর আগে বসে ওদের পঞ্চায়েতের মাধ্যমে মিলমিশ করে দিয়ে ছিলাম। আজকে সামান্য বিষয় নিয়ে খুনাখুনির ঘটনা ঘটলো।

এ ঘটনায় কেরানীগঞ্জ মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ মামুনুর রশীদ জানান, বিকেলের একটু পরে হত্যাকান্ডের ঘটনার খবর পেয়ে মডেল থানা পুলিশ সাথে সাথে ঘটনা স্থলে পৌছে। অতি দ্রæত সময়ে হত্যা কান্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযুক্ত তিনজনকে আমরা গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হই। এ ঘটনায় নিহতের বাবা বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। #

০৪ অক্টোবর ২০২২

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে [sharethis-inline-buttons]

Check Also

কেরানীগঞ্জে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে মারধর করে বাড়ি থেকে বের করে দেয়ার অভিযোগ

কেরানীগঞ্জে যৌতুকের দাবিতে নীলা আক্তার নামে এক গৃহবধূকে দুই শিশু সন্তানসহ বাড়ি থেকে বের করে …

error: Content is protected !!