কেরানীগঞ্জে একদিনে সর্বোচ্চো ১৩ জন আক্রান্ত !! মোট আক্রান্ত ৬৭ জন

কেরানীগঞ্জে আরো ১৩ জনের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাড়ালো ৬৭। বুধবার সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কেরানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মীর মোবারক হোসেন দিগন্ত।

মীর মোবারক হোসেন দিগন্ত জানান, বুধবার সন্ধ্যা পর্যন্ত পর্যন্ত নতুন করে আরো তেরো জনের শরীরে করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে কলাতিয়ায় ৬০ বছর বয়সী এক ব্যাক্তি কুর্মিটোলা হাসপাতালে মৃত্যুবরন করেন। বাকিরা হচ্ছেন দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানা এলাকার শুভাঢ্যা ইউনিয়নের হাসনাবাদ এলাকায় (৫১) বছরের এক নারী,মধ্যপাড়া এলাকা (৫৪) বছর বয়সী এক লোক, কালিগঞ্জ বাজার এলাকায় (৭০) বছর বয়সী এক লোক, একই ইউনিয়নের (৫৫) বছর বয়সী এক পুরুষ। জিনজিরা ইউনিয়নের ইসলামাবাদ এলাকায় (৪৬) বছর বয়সী এক ব্যাক্তি। আগানগরে পূর্বে আক্রান্ত এক ব্যাক্তির ৬৫ বছর বয়সী মা ও তার বড়ো ভাই (৫০) । কালন্দী ইউনিয়নের নেকরজবাগের (২৬) বছর বয়সী এক যুবক, শাক্তার আটি বাজারে পাচদোনায় (৬৫) বছর বয়সী একজন, কোন্ডার কাউটাইলে (৫৫) বছর বয়সী একজন, কাজীরগাও (২৫) বয়সী এক যুবক, এবং কেরানীগঞ্জের ঠিকানা উল্লেখ ছাড়া ৪০ বছর বয়সী এক মহিলা রয়েছে

তিনি আরো বলেন, কেরানীগঞ্জে এ পর্যন্ত ১৩৫টা করোনা টেষ্ট করা হয়েছে। কেরানীগঞ্জবাসী সচেতন না হলে সামনে আরো বিপদে পড়তে হবে বলে আমার ধারনা। জনগনের উদ্যোশে তিনি বলেন,প্রয়োজনে এক বেলা কম খেয়ে হলেও আপনারা ঘওে থাকুন।

কেরানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অমিত দেব নাথ বলেন, ধীরে ধীরে কেরানীগঞ্জে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলছে। জনগন যদি নিজ থেকে সচেতন না হয় তাহলে সামনে খুব বিপদে পড়তে হবে। জনগন এখন নিজ থেকে লকডাউন মানছে না কিন্তু পরিস্থিতি খারাপ হলে একটা সময় আসবে মাঠে সেনাবাহিনীও থাকবে আবার করোনা রোগীর সংখ্যাও বেড়ে যাবে। তাই আমার অনুরোধ আপনারা ঘরে থাকুন নিচে বাঁচুন পরিবার ও দেশকে বাঁচান। কোন প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হবেন না বের হলে মুখে মাক্স হাতে হ্যান্ডগেøাবস ও চোখে চশমা ব্যবহার করবেন। আর বেশীক্ষন সময় বাহিওে থাকবেন না। #

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে [sharethis-inline-buttons]

Check Also

কেরানীগঞ্জ উপজেলায় বাস্তবায়ন হচ্ছে বিষমূক্ত সব্জি উৎপাদনের ব্যাপক কার্যক্রম

নিরাপদ ও বিষমূক্ত সব্জি উৎপাদনের লক্ষ্যে ঢাকার কেরানীগঞ্জ উপজেলার হযরতপুর ইউনিয়নকে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে সমনি¦ত …

error: Content is protected !!