উদ্দেশ্যহীন ছাত্র রাজনীতি,মেধাশূন্য হচ্ছে দেশ

ছাত্র রাজনীতি এক আবেগের নাম। গৌরব ঐতিহ্য ও আশার বাতিঘর হিসেবে পরিচিত ছাত্র রাজনীতি রাষ্ট্রযন্ত্রের জ্বালানি হিসেবে কাজ করে।

ছাত্র রাজনীতির মাধ্যমে ওঠে আসা প্রজন্মই ভবিষ্যতে অভিজ্ঞ রাষ্ট্র পরিচালক হিসেবে সফল হতে পারেন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান থেকে শুরু করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা সহ কালের জনপ্রিয় সব রাজনৈতিক ব্যাক্তিবর্গের রাজনীতির সূচনা হয়েছে ছাত্র রাজনীতির মাধ্যমে। রাষ্ট্র পরিচালনার আতুরনিবাস হচ্ছে এই ছাত্র রাজনীতি। ৫২’র ভাষা আন্দোলন, ৭১’র মহান মুক্তিযুদ্ধ সহ দেশের বড় বড় সব আন্দোলন, সংগ্রামের পেছনে ছাত্র রাজনীতির অবদান ছিল তাৎপর্যপূর্ণ।

তবে বর্তমান প্রেক্ষাপট ভিন্ন। চাঁদাবাজি, সন্ত্রাসী কর্মকান্ড সহ বিভিন্ন প্রকার অপকর্মে দূষিত হয়ে পড়েছে ছাত্র রাজনীতি। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ভর্তি হওয়ার পর পরই নামধারী কিছু ছাত্রনেতাদের হাত ধরে নবীন শিক্ষার্থীরা জড়িয়ে পড়ে অপরাজনীতি ও অপকর্মের সাথে।

অবৈধভাবে ক্ষমতার অপব্যবহার করে চাঁদাবাজী সহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী কার্যক্রমের সাথে জড়িয়ে জলাঞ্জলি দিয়ে দেয় তাদের মেধা এবং ভবিষ্যৎ। কেউ কেউ শিক্ষা জীবনের ইতি টেনে বেছে নেয় অপরাধী জীবন আবার অনেকেই হতাশগ্রস্ত হয়ে নেশার মায়ায় হারিয়ে যায় অন্ধকার জগতের মাঝে।

এভাবেই ভন্ড ছাত্রনেতাদের উদ্দেশ্যমূলক ছাত্র রাজনীতির কবলে পড়ে ভবিষ্যৎ রাষ্ট্রপরিচালক হতে গিয়ে ধ্বংস হচ্ছে তরতাজা মেধাবী ছাত্র, ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে দেশ।

ক্রমশ সংক্ষিপ্ত হয়ে আসছে দেশ ও জাতির কল্যাণে ছাত্রদের গুরুত্বপূর্ণ অবদানের সমৃদ্ধ ইতিহাস। মৌলিক চিন্তা চেতনার জায়গা দখল করে নিয়েছে দূরদর্শীতা আর অনৈতিক কর্মকান্ড। যা ছাত্র রাজনীতির প্রকৃতির সম্পূর্ণ বিপরীত। সমাজের প্রতিটি স্তরে ইতিবাচক পরিবর্তনের জন্য প্রয়োজন শুদ্ধ ছাত্র রাজনীতি।

অপরাজনীতির পথ থেকে বের হয়ে দেশ ও স্বাধীনতার চেতনা হৃদয়ে ধারণ করে ছাত্র রাজনীতির সাথে যুক্ত হলেই এর মৌলিক স্থানটি সমৃদ্ধ হবে আবার। ছাত্র রাজনীতির উদ্দেশ্য হবে একটাই, সেটা হলো দেশ ও জাতির কল্যাণে ভূমিকা রাখা। নয়তো দেশের প্রেক্ষাপট থেকে ছাত্র রাজনীতির অবদানের ইতিহাস ধীরে ধীরে মুছে যাবে, মেধাশুন্য হবে দেশ।

লেখক: রকি মেরাজ 

শিক্ষার্থী, নৃবিজ্ঞান বিভাগ

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে [sharethis-inline-buttons]

Check Also

জ্বালানি তেলে লঙ্কাকান্ড!

গত ৫ আগস্ট রাতে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে আড্ডা দিচ্ছিলাম দুই জন রিপোর্টারের সাথে । হঠাৎ …

error: Content is protected !!